সিদ্ধিরগঞ্জে নিজ মেয়ে (১৩)কে ধর্ষনের অভিযোগে সাজেদ আলী (৪২) নামে এক লম্পট বাবাকে আটক করে গনধোলাই দিয়ে পুলিশে সোপর্দ করেছে এলাকাবাসী। পরে সাজেদ আলীর স্ত্রী ও মেয়েটির মা খাদিজা নাহারের অভিযোগে পুলিশ সাজেদ আলীকে থানায় নিয়ে যায়। বৃহস্পতিবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে রসুলবাগ এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। সাজেদ আলী পেশায় পিকআপ চালক। সে কক্সবাজার জেলার রামু থানার পানিছড়া গ্রামের বাসিন্দা। তবে সাজেদকে থানায় নিয়ে যাওয়ার পর  ওই মেয়ে ও তার মা বিষয়টি অস্বীকার করেন।
খাদিজা নাহার ঘটনাস্থলে গনমাধ্যমের কর্মী ও পুলিশ সদস্যদের জানান, এর আগেও একবার সাজেদ আলী মেয়েকে ধর্ষন করেছিলো। লোক লজ্জা ও মেয়ের ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করে বিষয়টি ধামাচাপা দিয়ে রাখেন তিনি । বৃহস্পতিবার দুপুরে মেয়েকে বাসায় একা পেয়ে সাজেদ আলী ফের ধর্ষনের চেষ্টা চালায়। এ সময়ে মেয়ের আর্তচিৎকারে আশপাশের বাড়ির লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয়।
ঘটনাস্থলে যাওয়া সিদ্ধিরগঞ্জ থানা এসআই শাহাদাৎ হোসেন জানান, সাজেদ আলীর স্ত্রী ও মেয়েটির মা খাদিজা নাহারের ধর্ষনের চেষ্টার অভিযোগে সাজেদকে ঘটনাস্থল থেকে থানায় নিয়ে আসা হয়। পরে খাদিজা বেগম বিষয়টি অস্বীকার করছেন। বিষয়টি রহস্যজনক মনে হচ্ছে। এ ঘটনাটি তদন্তনাধীন রয়েছে। তদন্ত শেষে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।