সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: সিদ্ধিরগঞ্জে গার্মেন্টস কর্মী ধর্ষিত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় পুলিশ ধর্ষক আমির হোসেন আশিক (২০) কে গ্রেফতার করেছে। রবিবার (১ জুলাই) সন্ধ্যায় নাসিক ৭ নং ওয়ার্ডের কদমতলী এলাকায় এ ঘটনাটি ঘটেছে। এ ঘটনায় সোমবার (২ জুলাই) দুপুরে ধর্ষিতা নিজে বাদী হয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে। ধর্ষক আমির হোসেন আশিক কদমতলী নয়াপাড়া এলাকার খলিলুর রহমানের ছেলে।

এ বিষয়ে সিদ্ধিরগঞ্জ থানার পরিদর্শক (অপারেশন) আব্দুল আজিজ জানায়, গ্রেফতারকৃত আশিক এবং ধর্ষিতা ও নারী স্থানীয় একটি গার্মেন্টসে চাকরী করতো। সেই সুবাধে তাদের উভয়ের মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই সম্পর্কের জের ধরে প্রায় সময় তারা বিভিন্ন জায়গায় ঘুরতে যেতো। তারই প্রেক্ষিতে রবিবার গার্মেন্টস ছুটি হওয়ার পর ওই নারী তার নিজ বাসায় চলে যায়। পরে আশিক সন্ধ্যা ৭টায় ওই নারীর বাসায় গিয়ে বেড়াতে যাবার কথা বলে তাকে আশিকের বাসায় নিয়ে আসে। এসময় আশিক তার সাথে গল্প করার একপর্যায়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে মেয়েটিকে জোর পূর্বক ধর্ষণ করে। তখন মেয়েটির আর্তচিৎকারে আশে পাশের লোকজন ছুটে আসলে ধর্ষক আশিক পালিয়ে যায়। পরে ধর্ষিতা থানায় এসে অভিযোগ করলে রাতেই ধর্ষক আশিককে পুলিশ গ্রেফতার করে। এ ঘটনায় সোমবার দুপুরে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। মামলা নং-৩। তিনি আরো জানায়, সোমবার দুপুরে ওই ধর্ষিতাকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য ওয়ান ষ্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে এবং ধর্ষককে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।