কারাগারে থাকা নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনিকে ডান্ডা বেরী পড়িয়ে আদালতে হাজির করেছে পুলিশ। (৭ অক্টোবর) রবিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি নাশকতার মামলায় রিমান্ড চেয়ে রনিকে আদালতে হাজির করা হয়। আদালত ফতুল্লা থানার একটি মামলায় ৩ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনিকে ডান্ডা বেরী লাগিয়ে আদালতে হাজির করায় ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। তারা অভিযোগ করে বলছেন, রনি একজন রাজনীতিক। তিনি কোন দাগী আসামি নন যে তাকে ডান্ডা বেরী লাগিয়ে আদালতে হাজির করতে হবে। তিনি জেলা ছাত্রদলের সভাপতি। ছাত্রদলের আইকন। অথচ তাকে সাঁজানো মামলায় আসামি করে আজকে তাকে ডান্ডা বেরী লাগিয়ে আদালতে আনলো পুলিশ। নেতাকর্মীরা, এ ঘটনায় নিন্দা জানান।

তিনটি অস্ত্র মামলায় টানা ৭ দিনের রিমান্ড শেষে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনিকে গত ২৪ সেপ্টেম্বর কারাগারে পাঠান আদালত। ২৪ সেপ্টেম্বর দুপুরে নারায়ণগঞ্জ অতিরিক্ত চিফ জুুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি কার্তুজ উদ্ধারের মামলায় দুই দিনের রিমান্ড শেষে রনিকে হাজির করে নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। আদালত রনিকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন।

এর আগে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনিকে দুইটি অস্ত্র মামলায় টানা দ্বিতীয় দফায় ৫দিন রিমান্ড শেষে গত ২২ সেপ্টেম্বর ৫টি কার্তুজ উদ্ধারের মামলায় তৃতীয় দফায় দুই দিনের রিমান্ডে নেয় নারায়ণগঞ্জ জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ। ২২ সেপ্টেম্বর বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহামুদুল মোহসীনের আদালতে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করে ডিবি পুলিশ। আদালত দুই দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আরও জানাগেছে, গত ২০ সেপ্টেম্বর তিন দিনের রিমান্ড শেষে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনিকে আরেকটি অস্ত্র উদ্ধার দেখিয়ে আরেকটি অস্ত্র মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে একটি মামলা দায়ের করে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। ওই মামলায় আদালতে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করলে আদালত দুই দিনের রিমান্ডে নেয় ডিবি পুলিশ।

পুলিশ দাবি করে-রিমান্ডের আসামি মশিউর রহমান রনিকে নিয়ে গত ২০ সেপ্টেম্বর ভোরে ফতুল্লা দাপা ইদ্রাকপুর ওরিয়ন গ্রুপের মাঠে একটি পাইপ গান উদ্ধার করে। পরে এসআই কামরুল ইসলাম বাদী হয়ে আরেকটি অস্ত্র মামলা দায়ের করে রনিকে সাত দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়। এ মামলায় দুইদিনের রিমান্ডে নেয় ডিবি পুলিশ।

এর আগে গত ১৭ সেপ্টেম্বর বিকেলে নারায়ণগঞ্জ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মাহামুদুল মোহসীনের আদালতে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ একটি বিদেশী অস্ত্র ও ৩ রাউন্ড গুলি উদ্ধার মামলায় ৭ দিনের রিমান্ডে আবেদন করলে আদালত ৩ দিনের রিমান্ডে মঞ্জুর করেন। তার কাছ থেকে একটি অস্ত্র ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করা হয় বলে জানায় ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ।

রনির পরিবারের দাবি গত ১৫ সেপ্টেম্বর দিবাগত রাতে নিখোঁজ হন রনি। তাকে ডিবি পুুলিশ পরিচয়ে তুলে নিয়ে যাওয়া হয় বলেও দাবি করা হয়। এরপর গত ১৭ সেপ্টেম্বর সোমবার ভোরে ফতুল্লা দাপা ইদ্রাকপুর এলাকা থেকে মশিউর রহমান রনিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি করে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ। তার কাছ থেকে বিদেশী একটি অস্ত্র ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরে ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের এসআই আব্দুল শাফিউল আলম বাদী হয়ে একটি মামলা দায়ের করেন। ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশ জানিয়েছে গত ১৭ সেপ্টেম্বর সোমবার ভোরে তাকে দাপা ইদ্রাকপুর এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

রনির পরিবার দাবি করে আসছিল- গত ১৫ সেপ্টেম্বর শনিবার দিবাগত রাতে ডিবি পুলিশ পরিচয়ে রাজধানী বাড্ডা এলাকা থেকে নারায়ণগঞ্জ জেলা ছাত্রদলের সভাপতি মশিউর রহমান রনিকে তুলে নিয়ে যাওয়া হয়। ১৬ সেপ্টেম্বর বিকেলে রনির সন্ধান চেয়ে সংবাদ সম্মেলন করেছেন রনির স্বজনেরা।

উল্লেখ্য, সম্প্রতি নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী এমপি একেএম শামীম ওসমানের এক বক্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় মশিউর রহমান রনি তার ফেসবুকে একটি স্টাট্যাজ দেন। ওই স্টাট্যাজটি স্থানীয় মিডিয়াতে প্রকাশিত হলে রনিকে নিয়ে বেশ আলোচনা সমালোচনা হয়।