নিজস্ব প্রতিবেদক : নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনে বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী সাবেক এমপি মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিনের মনোনয়ন বৈধ ঘোষনা করেছে নির্বাচন কমিশন। তার মনোনয়ন বৈধ ঘোষনার পরপরই নারায়ণগঞ্জে গুজব ছড়িয়ে পড়ে নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনে কে হচ্ছেন বিএনপির চুড়ান্ত প্রার্থী শাহআলম না গিয়াসউদ্দিন।

বিকাল থেকে ২০৬ আসনে বিএনপির প্রার্থীদের চুড়ান্ত তালিকা প্রকাশ শুরু করেন মহাসচিব মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমীর। সর্বশেষ নারায়ণগঞ্জ ২ (আড়াইহাজার) আসনে নজরুল ইসলাম আজাদের নাম ঘোষনা করা হয়। নারায়ণগঞ্জ ৩ (সোনারগাঁ) আসনে আব্দুল মান্নান একক প্রার্থী হওয়ায় তার মনোনয়ন নিয়ে কোন জটিলতা নেই। অপরদিকে নারায়ণগঞ্জ১ (রূপগঞ্জ), নারায়ণগঞ্জ ৪ (ফতুল্লা-সিদ্ধিরগঞ্জ) ও নারায়ণগঞ্জ ৫ আসনের মনোনয়ন কাকে দেয়া হয়েছে তা এখনো ঘোষনা না করায় নানা গুজব ছড়িয়ে পড়েছে জেলা। একেকজন প্রার্থীর পক্ষে ছড়ানো হচ্ছে নানা গুজব। গুজবে সবচেয়ে আলোচিত হয়ে উঠেছেন বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী মুহাম্মদ গিয়াসউদ্দিন। ইতোমধ্যে ছড়িয়ে দেয়া হয়েছে নারায়ণগঞ্জ ৪ আসনে বিএনপির টিকেট পাচ্ছেন গিয়াসউদ্দিন। কিন্তু নির্বাচন অফিস সূত্র জানিয়েছেন, মনোনয়ন জমার সময়ে যে দলের বা স্বতন্ত্র হিসাবে প্রার্থীরা নিজেদের চিহিৃত করেছেন তার বাইরে যাবার কোন সুযোগ নেই। ধানের শীষের প্রার্থী যেমন নৌকায় যেতে পারবেন না তেমনি স্বতন্ত্র প্রার্থীও কোন দলের প্রতীকে নির্বাচন করতে পারবেন না। এক্ষেত্রে কোন প্রার্থীর যদি মনোনয়ন জমার দেয়ার সময়ের মার্কার কোন পরিবর্তন হয় তাহলে তার মনোনয়ন বাতিল হয়ে যাবে। তাহলে কে হচ্ছেন বিএনপির মনোনীত প্রার্থী শাহ আলম না গিয়াসউদ্দিন।