একটি রিভলভার ও পাশে একটি এসএমজি হাতিয়ারসহ জঙ্গি সাদৃশ্য ছবি তোলা মো. নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীকে গ্রেপ্তার করেছে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ। একটি গার্মেন্টস কারখানার দেয়াল ভেঙে বিভিন্ন জিনিসপত্র ভাঙচুর ও লুটপাটের একটি মামলায় মঙ্গলবার রাতে তাকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসী জৈনপুরী পীর এনায়েত উল্লাহ আব্বাসী হুজুরের ভাই।

বুধবার (১ মে) পুলিশ সুপার কার্যালয়ে এবিষয়ে সংবাদ সম্মেলন করেন পুলিশ সুপার মোহাম্মদ হারুন অর রশীদ।
পুলিশ সুপার জানান, গত ২৬ এপ্রিল মধ্যরাতে নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীর নেতৃত্বে সিদ্ধিরগঞ্জের পাঠানটুলী এলাকায় ‘এইচ এন অ্যাপারেলস লি.’ নামক একটি প্রতিষ্ঠানে ঢুকে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর ও লুটপাট করা হয়।

পরে প্রতিষ্ঠানটির ইনচার্জ মো.মহিউদ্দিন সিদ্ধিরগঞ্জ থানায় একটি মামলা (নং-৭৪) দায়ের করেন। সেই মামলায় প্রধান আসামী করা হয় নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীকে।

পুলিশ সুপার বলেন, এঘটনার পরপরই বিভিন্ন গণমাধ্যমে নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীর হাতে একটি রিভলভার ও পাশে একটি এসএমজি হাতিয়ারসহ জঙ্গি সাদৃশ্য ছবি প্রকাশ পায়। এদুটি ঘটনায় তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। আব্বাসীর সাথে জঙ্গি সম্পৃক্ততা সম্পর্কে তদন্ত অব্যাহত আছে এবং তাকে নিয়ে অভিযান অব্যাহত আছে।

এদিকে গত ২৮ এপ্রিল নেয়ামত উল্লাহ আব্বাসীর বাড়িতে অভিযান চালিয়ে তাঁর হাতে থাকা রিভলভার ও পাশে একটি এসএমজিটি উদ্ধার করে সিদ্ধিরগঞ্জ থানা পুলিশ। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মীর শাহিনশাহ পারভেজ অস্ত্র দুটিকে খেলনা বলে সনাক্ত করেন।

তারা জানতে পারেন,ছোটবেলা থেকেই হাতিয়ার নিয়ে জঙ্গী সাদৃশ্য ছবি তোলার সখ আব্বাসীর। তাঁর সাথে জঙ্গী সম্পৃক্ততা রয়েছে কিনা এব্যাপারে তদন্ত করা হবে বলে জানিয়েছিলেন তিনি।