নিউজ প্রতিদিন ডট নেট: শহুরে দারিদ্রতা হ্রাসে বাংলাদেশের সাফল্য ও অভিজ্ঞতা বিনিময় করতে সদর উপজেলার বক্তাবলীতে ডিজিটাল সেন্টার প্রকল্প পরিদর্শন করেছে ফিলিপাইন সরকার ও জাতিসংঘের উন্নয়ন কর্মসূচির (ইউএনডিপি) একটি দল। প্রতিনিধি দলটি এ প্রকল্পে ‘ডিজিটাল প্রযুক্তি’ ব্যবহারে বাংলাদেশের অগ্রগতির বিষয়টিও গুরুত্ব দিয়ে পর্যবেক্ষণ করে। বুধবার (১৮ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ফিলিপাইন সরকার ও ইউএনডিপি’র ওই দল বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদে আসেন।

ইউএনডিপি ফিলিপাইনের আবাসিক প্রতিনিধি টাইটন মিত্রের নেতৃত্বে এসময় প্রতিনিধি দলে ছিলেন-ইউএনডিপির ফিলিপাইনের জেষ্ঠ্য প্রকল্প উপদেষ্টা উপদেষ্টা অ্যান্ড্রু পার্কার, ফিলিপাইনের স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের কারিগরী সহকারী ফৌজিয়া আবদুল্লাহ, মোহাম্মদ নূর আবদুল্লা অ্যাঙ্গি, ইউএনডিপি বাংলাদেশের দারিদ্র্য ও নগরায়ণ প্রকল্প প্রধান আশিকুর রহমান প্রমুখ।প্রতিনিধি দল বাংলাদেশ সরকারের এটুআই প্রকল্পের অধীন ইউনিয়ন পরিষদগুলোতে ডিজিটালাইজেশন প্রকল্পের প্রশংসা করেন। তাদের মতে, আধুনিককালে এ প্রযুক্তির ব্যবহারের বাংলাদেশ সরকার প্রশংসীয় সাফল্য অর্জন করেছে।

বক্তাবলী ইউনিয়ন পরিষদে প্রতিনিধি দলটিকে স্বাগত জানান ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম শওকত আলী। এসময় যুবলীগ নেতা আনোয়ার হোসাইন, নাসির মাদবর, খোরশেদ আলম মাস্টার ও ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্যগণ উপস্থিত ছিলেন।

প্রতিনিধি দলটি এর আগে নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন পরিদর্শন করেন। তাদের স্বাগত জানান মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী। উভয় পক্ষ দু’দেশের শহুরে দারিদ্রতা নিরসনে স্ব-স্ব প্রকল্প নিয়ে আলোচনা করেন।

এসময় মেয়র আইভী বলেন, এই প্রকল্পটি দরিদ্র বিশেষত মহিলাদের দারিদ্র্য থেকে উন্নত হতে সহায়তা করছে। এ প্রকল্পের মাধ্যমে দারিদ্র জনগোষ্ঠি সিটি কর্পোরেশনের আরও কাছাকাছি এসেছে। এ উদ্যোগের জন্য ইউএনডিপিকে ধন্যবাদ জানিয়ে মেয়র আরও বলেন, আমরা আশা করছি প্রকল্পটি সারাদেশে প্রসারিত হবে।

পরে প্রতিনিধি দলটি ফতুল্লায় এলআইইউপিসি প্রকল্পের সাইট পরিদর্শন করেন।