নিউজ প্রতিদিন:নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার বক্তাবলী ইউনিয়ন মৎস্যজীবী দলের ১১ সদস্য বিশিষ্ট ৮ নং ওয়ার্ড কমিটির অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

রবিবার (১২ জানুয়ারী)  সন্ধ্যা ৮ টায় বক্তাবলী বাজারস্থ কিং বার্গার চাইনিজ রেষ্টুরেন্টে কমিটি অনুমোদন অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হয়।

উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জাতীয়তাবাদী মৎস্যজীবী দলের কেন্দ্রীয় কমিটির সাবেক সাধারন সম্পাদক মিলন মেহেদী।

বক্তাবলী ইউনিয়ন মৎস্যজীবী দলের আহবায়ক সলিমুল্লাহ হৃদয়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, বক্তাবলী ইউনিয়ন বিএনপি’র সহ সভাপতি মোঃ ইব্রাহীম আজাদ, ফতুল্লা থানা মৎস্যজীবি দলের সদস্য সচিব মোঃ রাসেল প্রধান, বক্তাবলী ইউনিয়ন মৎস্যজীবী দলের সদস্য সচিব মোঃ মোজাম্মেল প্রধান,মোঃ ওমর ফারুক নাঈম।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন,বক্তাবলী ইউনিয়ন ছাত্রদল নেতা মোঃ রাহাত প্রধাণ ও আহম্মদ উল্লাহ দেওয়ানসহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ।

মোঃ মোরশেদ আলমকে আহবায়ক ও মোঃ জহিরকে সদস্য সচিব করে ১১ সদস্য বিশিষ্ট ৮নং ওয়ার্ড কমিটির অনুমোদন প্রদান করা হয়।

নির্বাচিত অন্যান্য নেতৃবৃন্দরা হলেন,যুগ্ম আহবায়ক মোঃ আলালউদ্দিন,মোঃ খলিল,মোঃ মিজানুর রহমান দেওয়ান,মোঃ আলী আহম্মেদ,সদস্য মোঃ সেলিম, মোঃ আলী আকবর,মোঃ ইনুছ, মোঃ আক্তার হোসেন ও মোঃ আবু সাঈদ প্রমূখ।

প্রধান অতিথি মিলন মেহেদী বলেন,জাতীয়তাবাদের আর্দশে অনুপ্রানিত হয়ে বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনে ঝাপিয়ে পড়তে হবে।আওয়ামী লীগ সরকার প্রতিহিংসা চরিতার্থ করার জন্য বেগম জিয়াকে অন্যায় ভাবে বন্দী করে রেখেছে।আওয়ামী লীগ সরকার বিচার বিভাগকে স্বাধীন করতে অনেক আন্দোলন করেছে।অথচ তাদের সরকারের আমলে বিচার বিভাগ স্বাধীন নয়।সরকার জানে বেগম জিয়া বাইরে থাকলে তাদের পতন নিশ্চিত।
আদালত স্বাধীন হলে বেগম জিয়ার মুক্তি ওয়ান টু ব্যাপার।সরকারের কাছে নয় বেগম জিয়াকে মানবিক কারনে মুক্তি দিতে আদালতের প্রতি জোর দাবী জানান।