স্টাফ রির্পোটারঃ ঈদের পর তৃণমূলের মতামতের ভিত্তিতে নারায়ণগঞ্জের রাজনৈতিক সংকট দূর করার আশ্বাস দিয়েছেন নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য একেএম শামীম ওসমান। তিনি বলেন, আসন্ন রমজানের ঈদের পর তৃণমূলের মতামত নিয়ে নারায়ণগঞ্জের রাজনীতির সংকট দূর করবো। অনেক পত্র পত্রিকায় লিখা হচ্ছে আজকের অনুষ্ঠানে কি হবে না হবে! কিন্তু আমরা ইফতার নিয়ে রাজনীতি করি না। মঙ্গলবার (২৮ জুন) বাদ আসর নারায়ণগঞ্জ ক্লাব কমিউনিটি সেন্টারে মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেনের আয়োজনে মাহে রমজান উপলক্ষ্যে ইফতার ও দোয়া মাহফিলে এসব কথা বলেন তিনি। তিনি আরো বলেন, মানুষ দুই প্রকার হয় ভালো আর মন্দ। আমরা ভালোদের নিয়েই রাজনীতি করতে চাই। মুখোশধারীদের কে নিয়ে নয়। বঙ্গবন্ধুর সময় খন্দকার মোস্তাক ছিল এখনো আছে। যুগে যুগে মোস্তাকের মত মুখোশধারীরা আসে।

এ সময়ে নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য নজরুল ইসলাম বাবু বলেন, আমরা নারায়ণগঞ্জকে আলোকিত নারায়ণগঞ্জ হিসেবে দেখতে চাই। সুন্দর রাজনীতিকে এগিয়ে নিয়ে যাবার জন্য সকল নেতৃবৃন্দকে এক টেবিলে বসিয়ে সাংসদ শামীম ওসমানকে ঐক্যবদ্ধ করার আহবান জানান।

মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আনোয়ার হোসেন বলেন, দীর্ঘদিনের রেষ কাটানোর জন্য এই ইফতার। মানুষের কল্যানে ঐকবদ্ধ হওয়ার আহবান জানান তিনি।

ইফতার মাহফিলে আরো উপস্থিত ছিলেন, নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের সাংসদ একেএম সেলিম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-৩ আসনের সাংসদ আলহাজ্ব লিয়াকত হোসেন খোকা, সংরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য হোসনে আরা বাবলী, জেলা পরিষদ প্রশাসক আব্দুল হাই, জাতীয় শ্রমিক লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির শ্রমিক উন্নয়ণ ও কল্যান বিষয়ক সম্পাদক কাউসার আহম্মেদ পলাশ, মহানগর আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি হায়দার আলী পুতুল, কমান্ডার গোপীনাথ দাস, বাবু চন্দন শীল, সাধারণ সম্পাদক এড. খোকন সাহা, যুগ্ম সম্পাদক জিএম আরমান, ফতুল্লা থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি এম.সাইফউল্লাহ বাদল, সাধারণ সম্পাদক শওকত আলী, জেলা যুবলীগের সাধারন সম্পাদক আবু হাসনাত শহিদ মো বাদল, আলীরটেক ইউনিয়নের চেয়ারম্যান মতিউর রহমান মতি, বাংলাদেশ হোসিয়ারী এসোসিয়েশনের সভাপতি নাজমুল আলম সজল, বাংলাদেশ ইয়ার্ন মার্চেন্টস্ এসোসিয়েশন সভাপতি লিটন সাহা, পূজা উদযাপন পরিষদ জেলা সভাপতি শ্রী শংকর সাহা, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি সাফায়েত আলম সানী, সহ-সভাপতি এড. আলী আকবর, সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান সুজন সহ রাজনৈতিক ব্যাক্তিবর্গ।