রাজধানীর গুলশান-বনানী-বারিধারা থেকে ৩৪২টি রেস্টুরেন্ট উচ্ছেদ করার লক্ষ্যে ভবন মালিকদের চিঠি দিয়েছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)।

কূটনৈতিক জোনখ্যাত এ এলাকা থেকে দ্রুততম সময়ে প্রতিষ্ঠানগুলো সরিয়ে না নিলে পানি, বিদ্যুৎ, গ্যাস ও টেলিফোন সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হবে। এ লক্ষ্যে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় সোমবার (১৮ জুলাই) থেকে সংশ্লিষ্ট দফতরগুলোকে চিঠি পাঠানো শুরু করেছে।

গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, ‘মন্ত্রিসভার বেধে দেয়া সময়ের মধ্যে আবাসিক এলাকা থেকে অবৈধ বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান অপসারণে আমরা দৃঢ়প্রতিজ্ঞ। তবে মানবিক দিক বিবেচনায় কাজের গতি কম ছিল। কিন্তু গুলশানের অবৈধ রেস্তোরাঁয় জঙ্গি হামলার পর আমরা কঠোর অবস্থান নিতে বাধ্য হয়েছি। এ অবস্থান থেকে আমরা এক চুলও নড়ব না।’

রাজউকের তালিকা অনুযায়ী, গুলশান-বনানী-বারিধারায় অবৈধভাবে ৩৪২টি রেস্টুরেন্ট গড়ে উঠেছে। এর মধ্যে শুধু গুলশানে রেস্টুরেন্ট আছে ১৯৩টি, বনানীতে ১৩৯টি, বারিধারা এলাকায় ১০টি রেস্টুরেন্ট রয়েছে।

রোববার সচিবালয়ে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয় আয়োজিত এক সভা থেকে রাজউকসহ সংশ্লিষ্ট প্রতিষ্ঠানগুলোকে কঠোর অবস্থান নিয়ে কাজ করার নির্দেশ দেয়া হয়। এ সভায় সভাপতিত্ব করেন গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন।