আজ বাংলাদেশ-ইংল্যান্ডের মধ্যকার শেষ টেস্টের প্রথম দিনের খেলার মাঝামাঝি সময়ে বেন স্টোকসের ধেয়ে আসা বাউন্সারটা লাগল একেবারে মুশফিকুর রহিমের হেলমেটের পেছনে। মাটিতে পড়ে গেলেন বাংলাদেশ টেস্ট অধিনায়ক।

ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়েরাই দ্রুত ফিজিওকে আসার ইঙ্গিত দিলেন। দৌড়ে ঢুকলেন বাংলাদেশ দলের ফিজিও। খানিক পরে ইংল্যান্ডের ফিজিও। স্ট্রেচার হাতে ফায়ার ব্রিগেডের দুই সদস্যও। খানিক পরে মুশফিক নিজেই উঠে দাঁড়ালেন। দুশ্চিন্তার মেঘটা সরে গেল তাতে। দর্শকেরা অধিনায়ককে অনুপ্রাণিত করলেন তুমুল করতালিতে।

তবে যখন বাউন্সারের আঘাতে ক্রিজে লুটিয়ে পড়লেন মুশফিক, তখন টিভি স্ক্রিনে তখন ভেসে আসল মুশফিকের বাবা-মায়ের চেহারা।

তবে দর্শকেরা অধিনায়ককে তুমুল করতালিতে অনুপ্রাণিত করলেও গ্যালারিতে বসা মুশফিকের মা রহিমা খাতুনের শংকা কাটলো না। কেঁদে দিলেন ছেলের দুশ্চিন্তায়।

দুশ্চিন্তা তো থাকবেই! মা বলে কথা। তবে এসময় মুশফিকের বাবা মাহবুব হামিদ তাকে সান্তনা দেন।