নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁওয়ে এলাকাবাসীর হামলায় নিহত পুলিশ কনস্টেবল আরিফ খানের হত্যা মামলায় মিন্টু (২৩) নামে এক যুবককে আটক করেছে জেলা গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশ।

সোমবার (১৪ নভেম্বর) ভোররাতে সোনারগাঁও রাজধীয়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়েছে। আটক মিন্টু সোনারগাঁও উপজেলার রাজধীয়া এলাকার সিরাজ উদ্দিনের ছেলে।

ডিবির ওসি (তদন্ত) নজরুল ইসলাম আটকের সত্যতা স্বীকার করেছেন।

প্রসঙ্গত, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও পৌরসভার আদমপুর বাজারের পান-সুপারির দোকানদার আবদুল মতিন (৫০) চলতি বছরের ৫ আগস্ট বুধবার বিকেলে বাড়ির সামনের সড়কের পাশে খড়ের গাদা তৈরি করছিলেন। এ সময় সোনারগাঁও থানার সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) ফখরুল ইসলাম ও কনস্টেবল আরিফুর রহমান সাদাপোশাকে মোটরসাইকেলে করে ওই সড়ক দিয়ে যাচ্ছিলেন। তারা ওই দোকানদারকে মাদক বিক্রেতা আখ্যা দিয়ে আটক করার চেষ্টা করেন। এ সময় মতিন সড়কের পাশে খাদের পানিতে লাফ দিলে পানিতে তলিয়ে মারা যায়।

এ ঘটনা দেখে এলাকাবাসী ক্ষুব্ধ হয়ে পুলিশ কনস্টেবল আরিফুর রহমানকে আটক করে। পরে এলাকার কয়েক’শ মানুষ একত্র হয়ে আরিফুর রহমানকে পিটুনি দিলে তিনি মারা যান। এর আগে সুযোগ বুঝে এএসআই ফখরুল সরে পড়েন।