ফতুল্লা প্রেস ক্লাবের সাংগঠনিক সম্পাদক ও দৈনিক ডান্ডিবার্তা পত্রিকার বার্তা সম্পাদক আব্দুর রহিমকে স্বপরিবারে হত্যার হুমকী দিয়েছে সন্ত্রাসীরা। গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় কয়েক দফায় একটি বাংলালিংক মোবাইল নম্বর থেকে এই হুমকী দেয়। এ ঘটনায় সাংবাদিক আব্দুর রহিম গতকাল শনিবার ফতুল্লা মডেল থানায় সাধারন ডায়েরী দায়ের করেছে। ডায়েরী নং-১৩০০।
সাংবাদিক আব্দুর রহিম জানায়, প্রতিদিনের ন্যায় গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় দৈনিক ডান্ডিবার্তায় যাওয়ার পথে মাহমুদ ওরুফে মগা পরিচয় দিয়ে ০১৯৭১১১১৪৭৯ নম্বর থেকে আমার ব্যবহৃত ০১৯২৩৪৯৬৫৫৭ নম্বরে ফোন করে আমাকে  ও আমার পরিবারকে হত্যার হুমকী দেয়। এছাড়া এই হুমকীর সংবাদ প্রকাশ করলে এর পরিনাম ভয়াবহ হবে বলেও জানায়। আমি তার সঠিক পরিচায় জানতে চাইলে ফোন কল কেটে দেয়। আব্দুর রহিম আরো জানায়,  কিছুদিন পূর্বে শাহজাহান রোলিং মিল খাঁ বাড়ি এলাকার ফাহিম ও ফতুল্লা পাইলট স্কুল এলাকায় চিহ্নিত মাদ্রক স¤্রাট দিপুর বিরুদ্ধে দৈনিক ডান্ডিবার্তা পত্রিকায় ধারাবাহিক তথ্যবহুল সংবাদ প্রকাশ করে। এই সাংবাদের পর ফাহিমের পরিবারের ৭ সদস্য ও দিপুকে গ্রেফতার করে ফতুল্লা পুলিশ। এ ঘটনার জের ধরে মাদক ব্যবসায়ীরা তাকে হুমকী দিতে পারে বলে তার ধারনা। উল্লেখ্য, গত ২ মাস পূর্বে মাদক ব্যবসায়ী দিপুর বিরুদ্ধে সংবাদ প্রকশের জের ধরে সাংবাদিক রহিমকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকী দেয় বলে অভিযোগ রয়েছে।
এব্যাপারে ফতুল্লা মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা কামাল উদ্দিন জানায়, এ ঘটনায় হুমকীদাতার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে একজন দারোগাকে নিদের্শ দেয়া হয়েছে।