শহর প্রতিনিধি
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা: সেলিনা হায়াৎ আইভীসেলিনা হায়াৎ আইভী নগরীর যানজট নিরসন ও হকারসহ সব সমস্যা সমাধানে প্রশাসন সহযোগিতা না পেলে পদত্যাগ করবেন বলে জানিয়েছেন।  সোমবার বেলা ১২টায় নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নগর ভবনের সম্মেলন কক্ষে মতবিনিময় সভায় তিনি এসব কথা বলেন। তিনি বলেন, ‘স্থানীয় প্রশাসনের কর্মকর্তারা একপেশে কাজ করছেন। সিটি করপোরেশনকে সহযোগিতা করছেন না। আমি নারায়ণগঞ্জবাসীকে সেবা দিতে না পারলে চলে যাব। তার আগে সংবাদ সম্মেলন করে সবার বিষয়ে বলে প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগপত্র কাছে জমা দেব।’
সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, ‘ত্বকী হত্যা নিয়ে যখন কথা বলেছি, তখন শহর ঠিক ছিল। আমি কথা বললে দলীয় লোকজন বলে সরকারবিরোধী। আর এখন চার বছর ধরে কোনও কথা বলি না, তাই সব কিছুই অগোছালো। আমি কারও টাকা খাই না, কথা বলতে ভয় পাই না। যখন বলব, তখন সংবাদ সম্মেলন করে সব বলে দেব।’ তিনি আরও বলেন, ‘সরকারি সব দফতর জনসেবার জন্য। দেশের ৬৪টি জেলায় রাজনৈতিক কোন্দল ও প্রতিযোগিতা রয়েছে। কিন্তু এত কিছুতেও অন্য জেলায় প্রশাসনের সব কর্মকর্তা কাজ করেন। কিন্তু নারায়ণগঞ্জে আসলে সবাই স্তব্ধ হয়ে যায় কেন? নারায়ণগঞ্জে প্রচণ্ড রাজনৈতিক প্রভাব আছে। কিন্তু জেলার ডিসি, এসপি চাইলে অবশ্যই সব করতে পারেন। এ জন্য নিজের ইচ্ছাই যথেষ্ট।’
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, ‘মাদক নিয়ন্ত্রণ পুলিশের নয়, মাদক নিয়ন্ত্রণ অধিদফতরের কাজ। তারাই এর জন্য কাজ করছে। তারপরও পুলিশ গত ১ বছরে ১৫০টি মাদক মামলা ও ৫০০ মাদকসেবী ও ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে।’ নারায়ণগঞ্জ শহরের যানজট ও হকার উচ্ছেদসহ বিভিন্ন সমস্যার বিষয়ে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, ওয়াসা, বিআরটিএ ও গণপূর্ত বিভাগসহ সব প্রশাসনিক দফতরের সঙ্গে ওই সভার আয়োজন করে নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন।
নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় উপস্থিত ছিলেন সিটি করপোরেশনের ২৭টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা। এছাড়া আরও উপস্থিত ছিলেন র‌্যাব ১১ এর কোম্পানি উপ-অধিনায়ক ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার নরেশ চাকমা, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ সহকারী পরিচালক মো. মামুনুর রশিদ, জনস্বার্থ প্রকৌশলের নারায়ণগঞ্জ জেলার সহকারী প্রকৌশলী মো. রফিকুল ইসলাম, গণপূর্ত বিভাগ নারায়ণগঞ্জ জেলার সহকারী প্রকৌশলী মো. আবুল হোসেন, নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের ক্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) মাহমুদুর রহমানর হাবিব প্রমুখ।