• নিজস্ব প্রতিবেদকঃ বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের প্রসূতি বিভাগ থেকে চুরি যাওয়া নবজাতককে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লা থেকে উদ্ধার করেছে র‌্যাব-৮ এর সদস্যরা। এসময় নবজাতক চুরির অভিযোগে আটক করা হয় মা-মেয়েসহ ৩ জনকে।আটকরা হলেন, হাওয়া বিবি, তার মেয়ে রিনা বেগম এবং রিনার স্বামী সোলায়মান হোসেন। এরা সকলে বরগুনা জেলার বাসিন্দা।

    বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে র‌্যাব-৮ এর বরিশাল সদর দফতরে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিং-এ এসব তথ্য জানানো হয়। একই সঙ্গে নবজাতককে তুলে দেয়া হয় তার বাবা-মা বরিশালের মেহেন্দিগঞ্জ উপজেলার খোরকী গ্রামের বাসিন্দা আনোয়ার হোসেন আকন ও তার স্ত্রী সালমা বেগমের হাতে।

    র‌্যাব-৮ এর বরিশাল সিপিএসসির ভারপ্রাপ্ত কোম্পানী কমান্ডার সহকারী পরিচালক মো. হাছান আলী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গতকাল বুধবার বরগুনার নলবুনিয়া থেকে হাওয়া বিবিকে আটক করা হয়। তার স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অভিযান চালানো হয় নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার একটি ভাড়া বাসায়। সেখান থেকে উদ্ধার করা হয় চুরি যাওয়া নবজাতককে এবং আটক করা হয় রিনা ও তার স্বামী সোলায়মানকে।

    সহকারী পরিচালক মো. হাছান আলী আরো জানান, গত ৩ জুন সন্ধ্যায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অস্ত্রোপচারের পর সালমা একটি ছেলে সন্তানের জন্ম দেন। পোস্ট অপারেটিভ থেকে নিয়ে আসার পর ওয়ার্ডের ভেতরে রোগী বেশি থাকায় তাকে বারান্দায় থাকতে হয়। ৪ জুন ভোর রাতে সুযোগ বুঝে নবজাতক চুরি করে মা-মেয়ে মেডিকেল থেকে পালিয়ে যায়। রিনা নবজাতক নিয়ে ফতুল্লার ভাড়া বাসায় চলে যায়।ওইদিনই সালমার স্বামী আনোয়ার হোসেন বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় মামলা দায়ের করেন।