নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানে একটি ফ্ল্যাট বাসায় অভিযান চালিয়ে তিন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

এ সময় ১৭০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়। তারা ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নিয়ে পাইকারি হিসেবে ফেসসিডিল বিক্রি করে আসছিল। তবে ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নেয়া ও মাদকের অন্যতম ডিলার সুমন পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায়।

রোববার সকালে ফতুল্লার মাসদাইর গাবতলী মাজার সংলগ্ন নুর হোসেন মল্লিকের মালিকানাধীন বাসায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেফতার করলেও দুপুরে গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করে পুলিশ।

গ্রেফতার সাইফুল ইসলাম (৩৪) ফতুল্লার মাসদাইর শেরে বাংলা রোড এলাকার মৃত মাহাবুব আলমের ছেলে, দেওভোগ পানির ট্যাংকি এলাকার মৃত হোসেন খানের ছেলে রনি খান (৩৬) ও মাসদাইর কলেজ রোডের মৃত বাদশা মিয়ার ছেলে মামুনুর রশিদ (৩৫)। আর পলাতক চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী সুমন দেওভোগ পানির ট্যাংকি এলাকার দীন ইসলামের ছেলে।

ফতুল্লা মডেল থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) কাজি এনামুল জানান, মাদকবিরোধী অভিযানে মাসদাইর গাবতলী মাজার সংলগ্ন এলাকায় একটি ফ্ল্যাট বাসা ভাড়া নিয়ে পাইকারি ফেনসিডিল ব্যবসা করে আসছেন তারা।

রোববার সকালে অভিযান চালিয়ে তিনজন মাদক ব্যবসায়ীকে গ্রেফতার করা হয়। এ সময় ১৭০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

ফ্ল্যাটটি ভাড়া নেয়া চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী সুমনকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে। তাদের বিরুদ্ধে ফতুল্লা মডেল থানায় মাদক আইনে মামলা করা হয়েছে বলেও জানান এসআই কাজি এনামুল।