জনগণের পক্ষে কথা বলায় এমপি আমাকে পিটিয়েছে-মেয়র আইভী

78

নিউজ প্রতিদিন ডটনেট : নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের মেয়র ডা. সেলিনা হায়াত আইভী বলেছেন, নারায়ণগঞ্জ-৪ আসনের এমপি আমাকে পিটিয়েছে। জনগনের পক্ষে কথা বলা এবং কাজ করার কারনে তার নির্দেশে আমার উপর হামলা হয়েছে। আমার অপরাধটা কি ছিলো, এই শহরকে যাজটমুক্ত করার জন্যইতো আমি চেষ্ঠা করেছিলাম। শহরকে যানজটমুক্ত করার জন্য মুষ্টিমেয় কয়েকজন হকারকে উচ্ছেদ করতে চেয়েছিলাম। তিনি এটাকে গরীবে পেটে লাথি মারা বলে আমার উপর হামলা করালেন। এখন আপনারাই বলুন আমি কি করে এই শহরকে যানজটমুক্ত করবো? গতকাল তিনি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের বাজেট অধিবেশনে শহরের যানজট নিরসন করতে না পারা, ফুটপাত থেকে হকারদের উচ্ছেদ করতে না পারা এবং শহরে অবৈধ অটো রিকশার অবাধ যাতায়ত নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।

সাংবাদিকরা মেয়রের কাছে জানতে চান তিনি কেন নারায়ণগঞ্জ শহরকে যানজট ও হকারমুক্ত করতে পারছেন না । এই ব্যার্থতার দায় মেয়র নিবেন কিনা, এসব প্রশ্নের জবাবে মেয়র উল্লেখিত কথাগুলি বলেন। তিনি আরো বলেন, নারায়ণগঞ্জ শহরকে যানজট মুক্ত রাখার দায়িত্ব হলো ট্রাফিক বিভাগ পুলিশের। পুলিশ যদি তাদের দায়িত্ব সঠিক ভাবে পালন না করে তাহলে সিটি করপোরেশন একা কি করবে? আমার হাতে তো অস্ত্র নেই, মাস্তান নেই। আমি নাগিরক সমাজকে সঙ্গে নিয়ে ফুটপাত দিয়ে পায়ে হেটে যাচ্ছিলাম। আমার উপর হামলা করা হলো, বহু মানুষ আহত হলো, আপনারা সাংবাদিকরাও আহত হলেন। আমি নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছিলাম।

আপনারা এখন আবার নাগরিক আন্দোলনের কথা বললেন। আমি আপনাদের সঙ্গে একমত। আমি বহুবার বলেছি, নারায়ণগঞ্জ শহরের যানজট নিরসন করার জন্য আপনারা নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে একটি রাউন্ড টেবিল বৈঠকের আয়োজন করার জন্য । সেখানে আমাকে রাখেন এবং নারায়ণগঞ্জের এমপি এবং প্রশাসনকে রাখেন। তাহলে হয়তো অনেক সমস্যার সমাধান হতে পারে। তিনি আরো বলেন আমার উচিৎ ছিলো আজকের এই বাজেট অধিবেশনে এমপিদেরকে রাখা। তাদেরকে আমার ফোন করা উচিৎ ছিলো। বিশেষ করে সেলিম ওসমান এমপি আমাকে কিছু সহযোগীতা করেছেন। তিনি থাকলে হয়তো আরো অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যেত।

এ সময় নারায়ণগঞ্জ সাংবাদিক ইউনিয়ন (এনইউজে) এর সভাপতি এবং নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবে কার্যকরী কমিটির সদস্য আবদুস সালাম বলেন, আমরা আগামী ২২ সেপ্টেম্বর আপনাকে এবং এমপিদের নিয়ে একটি অনুষ্ঠান করবো। আপনাকে থাকতে হবে। তখন মেয়র বলেন, এ সময় আমি দেশে থাকবো না। এ সময়ের আগে করেন অথবা আমি বিদেশ থেকে এলে তারপর করেন। আমি থাকবো।

বাজেট অধিবেশনে সাংবাদিক নেতৃবৃন্দের মাঝে আরো বক্তব্য রাখেন নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সভাপতি আরিফ আলম দীপু, সাধারন সম্পাদক রফিকুল ইসলাম জীবন, কার্যকরী কমিটির সদস্য ও প্রেসক্লাবের সাবেক সাধারন সম্পাদক আবু সাউদ মাসুদ এবং কার্যকরী কমিটির সদস্য আফজাল হোসেন পন্টি প্রমুখ।