রূপগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের বাড়িতে গুলি

183

রূপগঞ্জ প্রতিনিধিঃ নারায়ণগঞ্জের রূপগঞ্জে সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীরা মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোয়ায়েল আহাম্মেদ আলমাছের বাড়িতে গুলি করে তাকে হত্যার চেষ্টা চালিয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এমনকি তার পরিবারকে হত্যা করা হবে বলে হুমকি দেওয়া হয়েছে। গতকাল সন্ধ্যায় মুড়াপাড়া ইউনিয়নের মাছিমপুর এলাকায় এ ঘঠনা ঘটায় সন্ত্রাসীরা। এ ঘটনায় আলমাছ বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলমাছ জানান, মুড়াপাড়া ইউনিয়নের সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ী তাওলাদ ওরফে ফেন্সি তাওলাদ, মোহাম্মদ আলী ওরফে পিস্তল মোহাম্দ আলী, রিয়াজ ওরফে বিচি রিয়াজ, লেদা ফারুক, রশিদ, হানিফ, আল-আমিন,বাবু, লতিফ, গোলজার এলাকার চিহ্নিত মাদক ব্যবসায়ী ও সন্ত্রাসী। তারা দীর্ঘদিন ধরে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে ফেন্সিডিল, ইয়াবা, হেরোইন ও মদের ব্যবসা করে আসছে। মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এলাকার গন্যমান্য লোকজনদের সঙ্গে নিয়ে তাদের সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেয়। মাদক ব্যবসায় বাঁধা দেওয়ায় গত সন্ত্রাসীরা অস্ত্রেসস্ত্রে সজ্জিত হয়ে মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানের বাড়িতে গুলি ছোড়ে। সন্ত্রাসীরা আলমাছের বাড়িতে পিস্তল ও শর্টগানের কয়েক রাউন্ড গুলি ছোড়ে। এসময় আশপাশের লোকজন আতঙ্কিত হয়ে এদিক ওদিক ছোটাছুটি করে। পরে রূপগঞ্জ থানা পুলিশ খবর পেয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনেন। এ ঘটনায় মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোয়ায়েল আহাম্মেদ আলমাছ বাদী হয়ে রূপগঞ্জ থানায় একটি মামলা করেন। মামলার খবর পেয়ে সন্ত্রাসীরা রবিবার সন্ধ্যায় ফের চেয়ারম্যানের বাড়িতে হামলার প্রস্তুতি নেয়। পরে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় আলমাছসহ তার পরিবারের লোকজন চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে।

এ ব্যাপারে মুড়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান তোয়ায়েল আহাম্মেদ আলমাছ বলেন, মাননীয় প্রধান মন্ত্রীর ঘোষনা অনুযায়ী মুড়াপাড়া ইউনিয়নকে আমি মাদক মুক্ত করতে চাই। এলাকায় কিছু সন্ত্রাসী ও মাদক ব্যবসায়ীদের কারনে সন্ত্রাসী কর্মকান্ড ও মাদক ব্যবসা নিয়ন্ত্রন করা যাচ্ছেনা। তাওলাদ ওরফে ফেন্সি তাওলাদ, মোহাম্মদ আলী ওরফে পিস্তল মোহাম্দ আলী, রিয়াজ ওরফে বিচি রিয়াজ, লেদা ফারুক, রশিদ, হানিফ, আল-আমিন,বাবু, লতিফ, গোলজারকে দ্রুত গ্রেফতারের দাবী জানান। রূপগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাহমুদুল হাসান জানান, এ ঘটনায় মামলা হয়েছে। সন্ত্রাসীরা যত শক্তিশালী হোকনা কেন কেউ আইনের হাত থেকে বাঁচতে পারবেনা। চেয়ারম্যানের উপর হামলাকারীদের দ্রুত গ্রেফতার করা হবে।